এই ছবিটি থেকে আমরা কি শিক্ষা পাই?

এই ছবিটি থেকে আমরা কি শিক্ষা পাই?

এই ছবিটি মনোযোগ সহকারে দেখুন।

লোকটি কে জানেন?

ছবিটির বেশ কয়েকটি ব্যাপার লক্ষ্যনীয়।

* তার মাথার টিকিটি দেয়ালের সঙ্গে বাঁধা।
* চেয়ারের হেলান দেয়ার অংশটি ভাঙ্গা।
* তার টেবিলে অতিরিক্ত বইয়ের স্তুপ নেই।
* দরজা বন্ধ।

তিনি একান্ত মনোনিবেশ সহকারে পড়ছেন। তার ব্যাপারে জনশ্রুতি আছে যে, তিনি এক বই দুইবার পড়তেননা।

♦তিনি টিকিটি বেঁধে রেখেছেন কারন এটা হাওয়ার দুলুনীতে পড়ার মনোযোগ নষ্ট করে। আর ঝিমুনি আসলে এটাতে টান লেগে ঝিমুনি ছুটে যাবে।

♦তিনি চেয়ারের হেলান দেয়ার অংশটা ভেঙ্গে ফেলেছেন কারন এতে হেলান দিলে তাকে আলস্য ঘিরে ধরবে।

♦তিনি অতিরিক্ত বই টেবিলে রাখেননি কারণ তিনি চাননা যেটা পড়ছেন সেখান থেকে তার মনোযোগ অন্যদিকে ছুটে যাক।

আমাদের বর্তমান প্রজন্ম খেলতে খেলতে পড়ে। টিভি দেখতে দেখতে পড়ে। খেতে খেতে পড়ে। পড়া লেখায় জ্ঞান অর্জনের বিষয়টা এখন আর নেই। এটা নেহাত টাইম পাস। পড়ার জন্যই পড়া।

তাই পরীক্ষার আগে আমাদের প্রজন্ম পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস হওয়ার দিকে তাকিয়ে থাকে। টাকা দিয়ে প্রশ্ন কেনে। ডিজিটাল পদ্ধতিতে নকল করে।

অথচ একটু কষ্ট করলে তার নকল আর প্রশ্ন ফাঁসের দিকে তাকাতে হতোনা। আমাদের নকল করে পাস করা প্রজন্ম চাকরী পায়না। কারন, ইন্টারভিয়ুতে টেকার মত জ্ঞান তাদের নেই। যাদের মামা খালুর জোর আছে তাদের ব্যাপার আলাদা।

 

ছবির মানুষটি আর কেউ নয়। প্রবাদপ্রতিম পন্ডিত ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর।

সংগৃহীত

Add Comment
0 উত্তর(র)

আপনার উত্তর

By posting your answer, you agree to the privacy policy and terms of service.